এডসেন্স ব্যান্ড হওয়া পাবলিশারদের পুনরায় এডসেন্স একাউন্ট খুলার কিছু টিপস্‌

বহুদিন পর আজ লিখতে বসেছি। সবাই কেমন আছেন? নিশ্চই ভাল আছেন। আমিও ভালই আছি। যাই হোক, কথা না বাড়িয়ে আমি আমার আজকের লেখা শুরু করছি।

গত ২৬ শে মার্চ ২০১১- রাতটি বাংলাদেশের এডসেন্স ধারীদের জন্য ছিল একটি কালো রাত। ঐ রাতে আমার জানা মতে প্রায় ১০০+ এডসেন্স এর একাউন্ট ব্যান্ড হয়। আমার নিজের-ও একটা একাউন্ট ব্যান্ড হয় প্রায় আমার ৯৭২+ ডলার সহ। যার ভিতর ৪২৬ ডলারের চেক পরবর্তি মাসে ৩ তারিখে (০৩ এপ্রিল ২০১১) চেক পাই। সবমিলিয়ে প্রায় আমার ৫০০+ ডলার ধরা খাই। পরবর্তিতে আমি দুই-দুইটা একাউন্ট পাই। প্রথমটি পাই ০২ এপ্রিল এবং দ্বিতীয়টি পাই ০৮ এপ্রিল এ। কিন্তু সেই একাউন্ট গুলো দুই/একদিন যেতে না যেতেই আবার ব্যান্ড হয়ে যায়।

ব্যান্ড হবার কারন দেখায় যে- “এই নামে আরো একটি একাউন্ট আছে যেটা নাকি এডসেন্স এর ট্রামস্‌ এন্ড কন্ডিশন বিরোধিতা করায় ব্যান্ড হয়েছে। তাই বর্তমান একাউন্টিও ব্যান্ড করা হল।

এখন কথা হল নতুন একাউন্ট ব্যান্ড হলে কিভাবে পুনরায় এডসেন্স এ আবেদন করতে হবে এবং যেটা কিনা টিকে থাকবে ঠিক প্রথমটার মত।

প্রথমেই আমি ধন্যবাদ জানাই আমাদের সবার পরিচিত শকিল ভাইকে, তার কিছু উপদেশ ও আমার প্ররিশ্রমের মাধ্যমে আমি আমার ৩য় এডসেন্স টি টিকাতে পেরেছি। এখন আমি আমার সেই সব টিপস্‌ গুলো আপনাদের সবার সাথে শেয়ার করব।

এডসেন্সে-এ এপ্লাই করার আগে যেই সব দিকগুলো খেয়াল রাখবেন তা হলঃ

  • প্রথমেই নতুন করে ওপারেটিং সিস্টেমটি (উইন্ডোজ) রি-ইনিস্টল করে নিন।
  • আই.পিঃ পারলে আপনি আপনার আই.পি. নাম্বারটি চেঞ্জ করে নিন। না পারলে তেমন সমস্যা হবে না। আমি নিজেও করি নাই। তবে ওভার কনফিডেন্ট এর জন্য করতে পারেন।
  • নামঃ অনেকে বলে এক নামে একাধিক একাউন্ট করা যায় না। আসলে কথাটা একদম ভুল। কারন পৃথিবীতে একই নামে লাখ লাখ লোক আছে। তাই নামে কোন সমস্যা নাই আপনি নিশ্চিন্তায় আপনার আগের নাম ব্যবহার করতে পারবেন।
  • ঠিকানাঃ অবশ্যই ঠিকানা পরিবর্তন করে দিবেন। আগে যেই ঠিকানা ব্যবহার করেছেন সেই ঠিকানা না ব্যবহার করাই উত্তম হবে। একদম নিরুপায় হলে আগের টার সাথে ঠিকানার আগ-পিছ করে পরিবর্তন করে নিন। যেমনঃ প্রথমটায় ছিল এইরকম (১৫/৭ যাত্রাবাড়ি, ডেমরা, ঢাকা) নতুন করে এইভাবে দিতে পারেন (যাত্রাবাড়ি ১৫/৭, ডেমরা, ঢাকা) এই ভাবে কিছুটা পরিবর্তন করে দিন।
  • মোবাই নাম্বারঃ অব্যশই মোবাইল নাম্বার পরিবর্তন করে দিবেন।
  • ব্রাউজারঃ অবশ্যই আপনি আপনার সকল ব্রাউজার রি-ইনিস্টল করে নিন। পোর্টেবল ব্রাউজার থাকলে তার সকল ক্যাশ ও কুকিজ ডিলিট করে নিন।
  • পুরাতন সাইটে এডস্‌ ব্যবহারঃ আপনি আপনার সকল পুরাতন সাইটে এডসেন্স এর এডস্‌ ব্যবহার করতে পারবেন। তবে আপনার যে সাইট টি এডসেন্স সরাসরি “সাইট ব্যান্ড” করে দিছে সেটাতে ব্যবহার করবেন না।
comments

16 COMMENTS

  1. শিরোনাম আপডেট করা হল। ধন্যবাদ আপনাকে।

  2. হ্যালো ভাইয়া কিভাবে এডসেন্স একাউন্ট খুলবো সে ব্যাপারে দয়া করে জানাবেন কি বাংলাদেশের নাম তো কান্ট্রি বক্সে নাই… কি করতে পারি এখন। প্লিজ একটু জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here