ব্লগিং আইডিয়া পাওয়ার ৮ কিলার উপায়

লেখক : , প্রকাশকাল : 12 November, 2012

ধরুণ, আপনি অনেক চিন্তা ভাবনা করে একটি ডোমেইন কিনলেন, ভালো হোস্টিং প্রোভাইডারের কাছ থেকে হোস্টিংও নিলেন। সাইটটি রেডি করে এদিক সেদিক বিষয়ে দু’একটি পোস্টও লিখেছেন। কিন্তু ট্রাফিক পাচ্ছেন না, বা ভেবে পাচ্ছেন না কি করবেন, কি নিয়ে লিখবেন। যারা হটাৎ করেই ব্লগিংয়ে আসে তারা কাজে নামার আগে না ভাবলেও, কাজ শুরুর পর ভাবনা মাথায় চেপে বসে। তখন মাথায় শুধু একটা প্রশ্নই জাগে, কিভাবে ব্লগিং আউডিয়া পাওয়া যায়? কিভাবে ব্লগিং আইডিয়া পাওয়া যায়। প্রত্যেক ব্লগারের মাথাইই কাজ শুরুর আগে বা পরে এই প্রশ্নটা সামনে আসবেই। আপনি যদি আপনার পছন্দের কোনো নিশ নিয়ে ব্লগিং করেন তাইলে নিজের থেকেই অনেক আইডিয়া পাবেন। আপনি নিজেই অন্তত ৫০ থেকে ১০০ আইডিয়া বের করতে পারবেন মাথা থেকে। কিন্তু, তারপর কি? আপনাকে এমন একটি বিষয় নিয়ে লিখতে হবে যেটি পাঠক প্রত্যাশা করে। আপনি যা পড়েছেন তা নিয়ে লিখতে যাবেন না, কারণ আপনার পাঠকর্ওা সেটি পড়ে থাকতে পারে। পাঠক আপনার ব্লগে আসবে নতুন কিছু পাওয়ার জন্য, জানার জন্য। প্রত্যেক ব্লগারেই কিছু ফ্রেশ আইডিয়া দরকার, যেটি সচরাচর পাওয়া যায় না। নিচে এমন কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে, যার মাধ্যমে আপনি ব্লগিং আইডিয়া পাবেন। আপনার ব্লগিংকে আরো সাফল্যের পথে নিয়ে যেতে পারবেন।

আইডিয়া উৎস – ১: পড়ুন, পড়ুন এবং পড়ুন
ব্লগিং করতে হলে যে জিনিষটি আপনাকে সবচেয়ে বেশি করতে হবে, সেটি হলো পড়া। যেকোনো অথরিটি ব্লগিংয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে জরুরী বিষয় হলো পড়া। নিয়মিত সংশ্লিষ্ঠ বিষয়ে বিভিন্ন ব্লগ পড়লে বা ইন্টারনেটে ঘাটাঘাটি করলে আপনি কি নিয়ে লিখবেন সেটি সম্পর্কে অনেক ব্লগিং আইডিয়া পাবেন। আগেই বলেছি, আপনি যেটা পড়েছেন সেটি নিয়ে লিখবেন না। ঠিক তারই পাশাপাশি যেটি পাঠক এখনো জানেনি সেটি নিয়ে আইডিয়া মেকিং করবেন। আপনি শুধু অন্যান্য ব্লগ পড়বেন না একটি সাধারণ বই পড়লেও ব্লগিং আইডিয়া পাওয়ার যায়। আপনি বিভিন্ন ম্যাগাজিন, কনফারেন্স পেপার, বিশিষ্ঠজনদের বায়োগ্রাফি অথবা তাদের সাফল্যের কাহিনী পড়েও অনেক আইডিয়া পেতে পারেন। এখন সে বিষয়টি নিদ্দিষ্ঠ করে আপনাকে মার্কেট রিসার্স করতে হবে এবং চ’ড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

আইডিয়া উৎস – ২: অন্য ব্লগাররা কি বলে সেটি জানুন
অন্য ব্লগাররা কি বলছে বা লিখছে সেটি আপনাকে অনেক সহায়তা করবে আপনার ব্লগিং আইডিয়া পেতে। তারা যা লিখছে সেটি কপি বা তাদের কনটেন্ট রিরাইট করতে বলছি না, কারণ এটি করলে আপনি সবথেকে বড় ভুল করবেন। আমি অন্যদের লেখা পড়ছি এই কারণে যে, সেখান থেকে অনেক ভালো ভালো আইডিয়া পাবেন। আপনার যদি ভালোমানের ব্লগার হতে চান তাহলে এ কাজটি আপনাকে করতেই হবে। ইন্টারনেট মার্কেটিং, ব্লগিং বা মানি মেকিং অনলাইন বিষয়ে প্রোব্লগারের মতো অনেক ভালো ভালো ব্লগ আছে। এসব ব্লগের পোস্ট পড়ে আপনি অনেক আউডিয়া পাবেন।

আইডিয়া উৎস- ৩: বিভিন্ন ফোরামে লোকজন কি জানতে চায় সেটি খুঁজে বের করুন
ফোরাম হলো এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে মানুষ কি জানতে চায় বা খুঁজছে সেটি জানার অন্যতম মাধ্যম। আপনি যদি তাদের সমস্যাটির সমাধান জানেন, তাহলে সেই বিষয়ে আপনার ব্লগিংটাই হবে ঐ নিশটার জন্য একটি অথরিটি সোর্স হতে পারে। ধরুণ, আপনি তাদের সমস্যা নিয়ে লিখছেন। কিন্তু তারা তো আপনার সাইটটি জানে না। এইক্ষেত্রে ফোরাম হলো সবচেয়ে কার্যকর একটা জায়গা। ফোরামে আপনাকে যেকোনো বিষয়ে আলোচনা করার সুযোগ দেয় এবং এই বিষয়ে লোকজন কি ভাবছে সেটি জানতে পারবেন। এখানে আপনি সমস্যাটির সমাধান দিয়ে আপনার সাইটে তাদেরকে নিতে পারেন। আপনি যদি আপনার নিশ নিয়ে এগিয়ে যেতে পারেন, অথোরিটি ব্লগ তৈরি করতে পারেন আপনার ব্লগকে, আপনি যদি আলোচনা সৃষ্টি করতে পারেন তাহলে নিশ্চিত আপনি জয়ী হবেন। ফোরাম হিসেবে আপনি ইয়াহু অ্যান্সার বা উইকি অ্যান্সারসহ হাজার হাজার ফোরাম পাবেন যেখান থেকে আপনি আপনার লেখার আউডিয়া পাবেন।

আইডিয়া উৎস- ৪: আর্টিকেল ডিরেক্টরিতে নিয়মিত ভিজিট করুন
আপনি কি বিষয়ে লিখবেন সে সম্পর্কে সম্যক ধারণা দিয়ে পারে বিভিন্ন আর্টিকেল ডিরেক্টরি। একই সঙ্গে আর্টিকেল ডিরেক্টরি হলো শক্তিশালী আইডিয়া পাওয়ার খনি। তবে ব্লগের ক্ষেত্রে কোনো আর্টিকেল ডিরেক্টরিতে অনুসরণ করবেন না। কারণ কারণ আর্টিকেল ডিরেক্টরি মূলত কোনো ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আনার একটি মার্কেটিং পলিসি। সে হিসেবে এখানে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের বিপরীতে বিজ্ঞাপন নির্ভর আর্টিকেল বেশি থাকে। কিন্তু আপনি আপনার ব্লগে একই আইডিয়া দিয়ে আরো গভীরভাবে ও ভালোভাবে সে বিষয়ে সবাইকে জানাতে পারেন। তবে হ্যা, অবশ্যই আপনি আর্টিকেল ডিরেক্টরিতে যাবেন কোনো বিষয়ের টপিক নিয়ে একাধিক আইডিয়া পাওয়ার জন্য।

আইডিয়া উৎস- ৫: গুগল অ্যাডওয়ার্ড টুলের সহায়তা নিন
যেকোনো শব্দ বা বাক্য বসিয়ে গুগল অ্যাডওয়ার্ড টুলের মাধ্যমে ঐ সম্পর্কিত ভালো আইডিয়া পাওয়া যায়। লোকজন সার্চ ইঞ্জিনে কি খুজঁছে এবং পিপিসি অ্যাডভারটাইমেন্টের ক্ষেত্রে বিড পাওয়ার জন্য মূলত অ্যাডভারটাইজারদের জন্য গুগল অ্যাডওয়ার্ড টুল ডিজাইন করা হয়েছে। সেই হিসেবে লোকজন কি খোঁজে তার উপর ভিত্তি করে আপনি বেশ কিছু ব্লগিং আইডিয়া পাবেন। এটি একটি শক্তিশালী সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন [এসইও] টুল, তাই আপনি এর মাধ্যমে আপনি আপনার পোস্টে শক্তিশালী ও প্রয়োজনীয় কিওয়ার্ড যুক্ত করতে পারেন।

আইডিয়া উৎস- ৬: সর্বশেষ সংবাদের খোঁজ রাখুন
ফ্রেশ ব্লগ আইডিয়া ও ব্লগ কনটেন্ট পাওয়ার জন্য সংবাদ হলো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি উৎস। এটি একটি নিশ ব্লগে অথরিটি পোস্টের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভ’মিকা রাখে। আপনি যদি কোনো সংবাদ ভালোভাবে উপস্থাপন করতে পারেন তবে যারা হট সংবাদ খোঁজেন তাদের মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভালো ট্রাফিক পাবেন। তারাই হবে আপনার টার্গেটেড জনগন, যাদের আপনি আপনার ব্লগের নিয়মিত পাঠক হিসেবে কনভার্ট করতে পারবেন। সংশ্লিষ্ঠ আপডেটেড নিউজ পেতে আপনি গুগলে নিউজ অ্যালার্ট তৈরি করতে পারেন। ফলে আপনি সহজেই আপডেটেড নিউজের খবর পাবেন। আপনি যদি এমন কোনো বিষয়ে ব্লগিং করেন যেটি দ্রুত পরিবর্তন হয়, যেমন- রাজনীতি বা প্রযুক্তি, সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ব্লগিং আইডিয়া পেতে সর্বশেষ সংবাদের খোঁজ রাখতেই হবে।

আইডিয়া উৎস- ৭: জিজ্ঞাসা করুন
ব্লগের ক্ষেত্রে এটি একটি অতি প্রয়োজনীয় বিষয়। আপনি আপনার পোস্টে পাঠকের কাছে তাদের মতামত চেয়ে প্রশ্ন করতে পারেন। এরফলে আপনি কিছু অ্যাক্টিভ মন্তব্যকারী পাবেন। এছাড়া তারা কি চায় সে সম্পর্কেও অনেক মন্তব্য পাবেন। আর এগুলো বিনামুল্যেই পাবেন!
একইকাজটি আপনি সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুকে বা টুইটারেও করতে পারেন। সেখান থেকে তাদেও প্রত্যাশাগুলোতে একত্র করে  ব্লগিং করার চেষ্টা করেন। আপনার সফলতা নিশ্চিত।

আইডিয়া উৎস- ৮: অবশ্যই নিয়মিত আপনার অ্যানালাইটিক্স দেখুন
লোকজন সার্চ ইঞ্জিন বা অন্য কোনো উপায়ে কিভাবে আপনার ব্লগে আসছে সে সম্পর্কে ধারণা পেতে অ্যানালাইটিক্স এর কোনো জুড়ি নেই! সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে কি পরিমান ভিজিটর আসছে, সেটি জানার মাধ্যমে আপনি তাদেরকে কতোটা সন্তুষ্ঠ করতে পারছেন বা আপনার কিওয়ার্ডটি কতোটা যুক্তিযুক্ত হয়েছে সেটি সম্পর্কে সম্যক ধারণা পাবেন। আর এই টার্গেটেড কিওয়ার্ডের মাধ্যমে ব্লগকে উন্নত করে আরো ভালো ট্রাফিক আনা যায়।

এছাড়া আরো অনেক মাধ্যম আছে যার মাধ্যমে আপনি ভালো ব্লগিং আইডিয়া পেতে পারেন। আপনাদের জানা থাকলে সেটি অবশ্যই শেয়ার করতে পারেন। আপনাদের ব্লগিং শুভ হোক, সেই কামনা।

comments

Comments

  1. ফাটাফাটি শামিম ভাই… প্রথম পোস্টে তো পুরাই বাজিমাত করেদিছেন… 🙂

  2. বদরুদ্দোজা মাহমুদ তুহীন says:

    অসাধারণ হয়েছে শামিম ভাই। নতুন ব্লগার বা যারা ব্লগিং শিখতে চায় তাদের জন্য খুবই যথার্থ হবে… 🙂

  3. আমি কিছু কইবার চাই না শুধু একটা 🙂 (হাসি দিবার চাই)জোস হইছে মামা। নিয়মিত লেখা চাই শামিম ভাই। আশা করি নিরাশ করবেনা আমাদের। ধন্যবাদ

  4. RAMNA DHAKA says:

    oshadaron hoise…

  5. ভাইয়া আরও কিছু টিপস দিলে সবাই উপকৃত হত। সবাইত আর আপনাদের ত্রেইনিং এ অংশ গ্রহন করতে পারবনা, কারন, এই ত্রাইনিং শুধু ঢাকার এলিএফান্ত রোডেই হয়।

  6. ভাইয়া, আপনার লেখাগুলো পড়ছি। যারা ব্লগিং শিখতে বা আমার মত যারা নতুন ব্লগ লেখা শুরু করতে যাচ্ছি তাদের জন্য আপনার পোস্টটি সত্যিই খুবই উপকারী এবং সময় উপযোগী ।

  7. অসাধারণ সুন্দর একটা লেখা ! ! খুব ভাল লেগেছে ভাই । নিয়মিত লিখা চাই 😀

  8. Jewel says:

    অথরিটি ব্লগিং মানে কি?

  9. পোস্টটি বেশ ভালো লাগল। কাজে লাগবে আশা করি। ধন্যবাদ।

মন্তব্য প্রদান করুন

*