এসইও (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন) এ যারা ক্যারিয়ার গড়তে চান তাদের জন্য গাইডলাইন..

লেখক : , প্রকাশকাল : 19 July, 2012

আপনার ইংরেজি পড়া এবং বোঝার স্কিল যদি মোটামুটি লেবেলের ভালো হয় তবে আপনি গুগলকে ব্যবহার করে ভালো মানের কিছু ব্লগ থেকে এসইও’র অনেক অনেক কিছু শিখতে পারেন। আর নেট স্পিড ভালো হলে তাহলেতো কথাই নেই! বিভিন্ন জিনিষ সার্চ করে সেগুলোর ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করে দেখতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা রক্ষা করা দুরুহ হয়ে পড়ে।

তারপরও সব চেয়ে বড় ব্যাপারটা হচ্ছে গাইডলাইন (কোনটার পর কোনটা শিখতে হয়)। ইন্টারনেট ঘেটে শিখতে গেলে যা অনেক কষ্ট সাধ্য। আরও একটা মূল ব্যাপার হচ্ছে এতে করে অনেকে ই আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। আর যারা  ধৈর্য্য ধারন করে শিখে যেতে পারে তারাই পায় চূড়ান্ত সাফল্য। যাই হোক, মূল কথাইতো বলি নাই। শুধু পড়ে পড়ে শিখলেই হবে না প্রাকটিসও করতে হবে। নইলে নিজে নিজে পড়ার কোনো সফলতা আসবে না। কারন এসইও হচ্ছে একটা প্রাকটিকাল ফ্লো, যা কাজে লাগানোর ধারাবাহিকতা না থাকলে কোন ফল আশা করা যায় না।

 

এ বিষয়ে সিনবাদ কনিক এর স্ট্যাটাসে তাহের চৌধুরী সুমন  ভাই বলেছিলেন  “ আমার খুব পছন্দের একটা উক্তি কনিক তোমার কথার পরিপেক্ষিতে সবার উদ্দ্যেশে বলছি —” তুমি যতই শিক্ষিত আর জ্ঞানী ব্যক্তি হও না কেন, নিজের জীবনে তার প্রতিফলন ব্যতীত তুমি মূর্খ। তোমার জ্ঞান অধুরা “। তাই শুধু ইবুক/আর্টিকেল পড়লেই কিংবা ভিডিও দেখলেই হবে না। সেটার সাথে সাথে বাস্তবে কাজে লাগাতে হবে। নিজের সাইটে বা ব্লগে ইমপ্লিমেন্ট করতে হবে। তা না হলে কখনোই ১০০% সাফল্য অর্জন সম্ভব না, আর এটা এসইও ক্ষেত্রেতো মাস্ট। ‌’তবে অনেস্টলি স্পিকিং মেন্টর ছাড়া আসলেই নিজে নিজে সব কিছু শিখা সম্ভব হয় না। আর তখনি প্রয়োজন হয় আমাদের Search Engine Optimization BD গ্রুপের মত গ্রুপের। যেখানে অনেক এক্সপার্ট আছে, যারা আমাদের আপনাদের যে কোন সমাধানের জন্য সর্বদা ব্যস্ত।

আর এসইও শেখার জন্য আরও হেল্পফুল হবে যখন আপনার নিজের কোন ব্লগ বা সাইট থাকবে। এতে আপনি টেকনিক্যাল ব্যাপার থেকে শুরু করে সব ব্যাপার গুলো আয়ত্বে আনতে পারবেন। আপনার নিশ্চই জানেন এসইও শুধু মাত্র আর্টস নয়, এতে সায়েন্স আর কমার্সও রয়েছে (আসিফ আনোয়ার পথিক ভাই )। সাইন্স হচ্ছে টেকনিক্যাল ব্যাপারগুলো-বিভিন্ন ইন্টারনাল টেকনিক গুলো হচ্ছে আর্টস। আর ব্লগের/সাইটের বাহিরের বিভিন্ন প্রমোশনের কাজ হচ্ছে কমার্স :D । আমি সেদিনও দেখলাম, এক ভাই বলছেন কেন এসইও তে নিজের ব্লগ/সাইট থাকতে হবে ! তিনি যদি পুরো বিষয়টি পুংখানু পুংখ রুপে বোঝার চেষ্টা না করেন তা হলে এই জটিল বিষয়টি বোঝা সম্ভব না। আপনি এত টুকু ই চিন্তা করুন, নিজের ব্লগ বা সাইট থাকলে এসইও টেকনিক্যাল ফিল্ডগুলো অত্যন্ত ক্লিয়ার হয়ে যায়। আর টেকনিক্যাল ফিল্ডে ভালো না হইলে এসইও অনেক মার খেতে হবে। সো এটা আমি আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি যারা ভালো ভাবে অ্যাডভান্স পর্যায়ের এসইও শিখতে চান তাদের অবশ্যই ব্লগ বা সাইট থাকা জরুরী।

আর যারা ইংরেজিতে দুর্বল, নেট ঘেঁটে শিখার ব্যাপারে খুবই ক্ষীণ আগ্রহ এবং সঠিক গাইড লাইন পাচ্ছেন না, কোনটার পর কোনটা শুরু করা দরকার। তাদের জন্য আমি বলবো আপনি ভালো কোন প্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স করে নিন। অবশ্যই সেখানকার রিসোর্স পারসন (কে বা কারা শিখাচ্ছে প্রয়োজনে তার সম্পর্কে জেনে নিন) দেখে নিবেন। বাংলাদেশে কয়েক বছর পূর্বেও ভালো কোন ইন্সটিটিউট ছিলো না (আমি যতদুর জানি) আর পার্সোনালিও জানা লোকেরা শিখাইতে চাইত না। এসব গ্রুপ গুলোর মধ্যে সেই দিনগুলোর অবস্থার পরিবর্তন এসেছে। যারা এসইও (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন) এর উপর কোর্স কারার কথা ভাবছনে তারা DevsTeam Institute (প্রাক্তন অনলাইন সাপোর্ট) এর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। ডিটেইলস পাবেন এখানে https://www.facebook.com/DevsTeam/info। এরা খুব ই ট্রাস্টেড, আপনি নির্দিধায় এদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

 

নোটঃ   সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে সুমন ভাই এর সুরে ‘শুরুতে আয়ের জন্য নয় শুধুমাত্র শিখার জন্য শিখুন, আর যে কোন কাজ শিখলে শিখার মত শেখো হোক। সেটা ব্লগিং অথবা ওয়েব ডিজাইন যাই হোক না কেনো! তাহলে ইনশাল্লাহ আয় হতে বাধ্য’। অনেকেই দেখি আমার কাছে বা বিভিন্ন গ্রুপে ফোরাম সাইটের লিঙ্ক, বুকমার্ক সাইটের লিস্ট, এটা সেটার লিঙ্ক চায় 😀  আরে ভাই গুগলে সার্চ করেও ত লিস্ট পাওয়া যায়, খুঁজতে হবে আর তাই খোঁজা শিখতে হবে। এভাবে আমি কিছু চাইলে ভাইয়া প্রায়ই আমাকে বলেন ‘আমি মাছ ধরে খাওয়াই না, মাছ ধরা শিখাই। যাতে আমার দেয়া মাছ শেষ হয়ে গেলোও তোমাদের আর আমার মুখাপেক্ষী না হয়ে থাকতে হয়’।

সবাই ভালো থাকুন , সুস্থ থাকুন, ভালবাসাসহ আপনাদেরই সাব্বির আলম ।

comments

Comments

  1. হুম আসলেই মাছ ধরে খাওয়াটাই অনেককে শিখতে হবে
    তাহলে আর কেউ প্রতারনার স্বীকার হবে না

  2. গুছিয়ে লিখেছেন। নতুনদের অনেক কাজে লাগবে।

  3. khokon says:

    ভাল লাগল

  4. rokibuzzaman says:

    কাজে লাগবে

মন্তব্য প্রদান করুন

*